মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভৌত অবকাঠামো

ভৌগোলিক অবস্থানগত কারনে উত্তরাঞ্চলের পাবনা  জেলা একটি উচু ও সমতল এলাকা। ইছামতি নদী এই এলাকার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত ও ঢাকা-পাবনা মহাসড়কের সাথে দীর্ঘ ৮ কিঃ মিঃ জুড়ে অবস্হিত।অতীত কে নয় বর্তমান প্রজন্মকে সঠিক পথে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করে এবং প্রযুক্তিগত দক্ষতা বাড়িয়ে দেশ ও সমাজের উন্নয়নের দুয়ার উন্মোচন করতে সদা প্রস্তূত আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদ।

                    আতাইকুলা ইউনিয়ন সমতল ও যোগাযোগ ব্যবস্হা সম্পূর্ন একটি ইউনিয়ন। এক সময়ে অত্র ইউনিয়নে অসংখ্য খাল বিল বা জান ছিল। ইছামতি  নদীর তীরে গড়ে ওঠা উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী আতাইকুলা ইউনিয়ন । প্রথম থেকে আজ পর্যন্ত অাতাইকুলা ইউনিয়ন শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, খেলাধুলা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার নিজস্ব স্বকীয়তা আজও সমুজ্জ্বল।তাছাড়া বর্তমানে এই ইউনিয়নে প্রচুর সবজির আবাদ হয়।ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে প্রতিদিন সবজির হাট বসে এগুলো রাজধানী সহ বিভিন্ন জেলায় বিক্রির জন্য চলে যায়।

আব্দুল হাই পীর কেবলার দরগাহ শরীফ 

মৃত আব্দুল হাই পীরকেবলা সাহেব ইসলাম প্রচারের জন্য আতাইকুলা ইউনিয়নের চড়াডাঙ্গা নামক স্হানে তাহার অনুসারীদের নিয়ে ইসলাম প্রচার করে। প্রতি বছর এই মাজারে বিভিন্ন বার্ষিক ওরশ ও মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। বর্তমানে এখানে একটি এতিমখানা সহ মাজার উন্নয়নের কাজ চলতেছে।


Share with :

Facebook Twitter